• রবিবার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ০৯:৫২ অপরাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी
বার্তা বিজ্ঞপ্তি:
দৈনিক বার্তা সময়ে নিয়োগকৃত প্রতিনিধি হওয়ার আপাতত কোন সুযোগ নেই, তবে সকল সংবাদকর্মী আমাদের বার্তামেইলে সংবাদ প্রেরণ করতে পারবেন। আপনদের প্রেরিত বার্তা বাছাইক্রমে প্রকাশ করা হবে এবং প্রেরিত  সংবাদের ভিত্তিতে আপনার প্রতিনিধি  হওয়ার সুযোগ থাকবে-  ধন্যবাদ  -সম্পাদক।  বার্তা প্রেরণের মেইলঃ dainikbartasomoynews@gmail.com

ট্রাম্পের নামে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করল ইরান

দৈনিক বার্তা সময় ডেস্ক: / ১৯৮ বার পড়া হয়েছে
প্রকাশ সময় : সোমবার, ২৯ জুন, ২০২০


পরমাণু কর্মসূচি ও তার জেরে চাপতে থাকা আর্থিক নিষেধাজ্ঞা নিয়ে অশান্তি দীর্ঘদিন ধরেই। ওয়াশিংটনের অভিযোগ, অসামরিক পরমাণু কর্মসূচির আড়ালে আসলে পরমাণু অস্ত্র বানাচ্ছে ইরান। মার্কিন প্রেসিডেন্ট পদে ডোনাল্ড ট্রাম্প   আসার পর পরিস্থিতি আরও খারাপ হয়। তেহরানের সঙ্গে তিক্ততা এমনই পর্যায়ে পৌঁছেছে যে এবার মার্কিন প্রেসিডেন্টের নামে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করল ইরান । ইরাকের বাগদাদ বিমানবন্দরের কাছে ড্রোন হানায় নিহত ইরানের সেনার জেনারেল কাসেম সোলেমানির মৃত্যুর জন্য দায়ী করে ট্রাম্প-সহ ৩০ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে তেহরানে।জানুয়ারিতে ইরাকের বাগদাদ বিমানবন্দরের কাছে মার্কিন ড্রোন হানায় মৃত্যু হয় ইরানের সেনার জেনারেল কাসেম সোলেমানির। প্রাণ হারান ইরাকের পার্লামেন্টারি বাহিনীর ডেপুটি চিফ আবু মেহদি অল মুহান্দিস’ও। সোলেমানির হত্যার প্রতিশোধ নিতে মধ্যরাতে ইরাকের মার্কিন সেনা ও যৌথ বাহিনীর ব্যবহৃত দুই ঘাঁটিতে ক্ষেপণাস্ত্র চালায় তেহরান। তাতে কমপক্ষে ৮০ জন ‘মার্কিন জঙ্গি’ নিহত হয়েছে বলে দাবি করেন ইরানের শীর্ষনেতা আয়াতোল্লা আলি খামেনেই। ইরানের সংবাদমাধ্য়ম অনুযায়ী, ইরাকে মার্কিন সেনা ও যৌথ বাহিনীকে নিশানা করে মোট ১৫টি ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়েছিল তারা। প্রসঙ্গত, সোলেমনি হত্যার পর পরই প্রকাশ্যে ইরানকে হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। সোলেমানি হত্যার বদলা হিসেবে কোনও মার্কিন নাগরিক বা প্রতিষ্ঠানের উপর হামলা হলেই ইরানের আরও ৫২ জায়গায় আক্রমণ হবে জানিয়ে হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন তিনি।

জানুয়ারির ওই হামলার পিছনে ট্রাম্প-সহ ৩০ জন জড়িত বলে দাবি করেছেন তেহরানের এক আইনজীবী। গ্রেফতারি পরোয়ানার ভিত্তিতে ইন্টারপোলের কাছেও নোটিশ পাঠিয়েছে ইরান। তবে ফ্রান্সের লিয়ঁতে ইন্টারপোলের সদর অফিস থেকে কোনও মন্তব্য আসেনি।

ট্রাম্প কি গ্রেফতার হতে পারেন? এই প্রশ্নের স্বাভাবিক উত্তর অবশ্যই না। তবে ইরানের ওই আইনজীবীর একটি মন্তব্য এক্ষেত্রে অত্যন্ত প্রাসঙ্গিক। আলকাসিমেহরের কথায়, ‘প্রেসিডেন্ট পদে ট্রাম্পের মেয়াদ শেষের পরও এই মামলা চলবে। ইরানও সহজে ভুলবে না।’প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বা হোয়াইট হাউজের তরফে এই নিয়ে কোনও প্রতিক্রিয়া দেওয়া হয়নি।


এই বিভাগের আরও বার্তা

যোগাযোগ করুনঃ