• মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ০৫:৫৪ পূর্বাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी
বার্তা বিজ্ঞপ্তি:
দৈনিক বার্তা সময়ে নিয়োগকৃত প্রতিনিধি হওয়ার আপাতত কোন সুযোগ নেই, তবে সকল সংবাদকর্মী আমাদের বার্তামেইলে সংবাদ প্রেরণ করতে পারবেন। আপনদের প্রেরিত বার্তা বাছাইক্রমে প্রকাশ করা হবে এবং প্রেরিত  সংবাদের ভিত্তিতে আপনার প্রতিনিধি  হওয়ার সুযোগ থাকবে-  ধন্যবাদ  -সম্পাদক।  বার্তা প্রেরণের মেইলঃ dainikbartasomoynews@gmail.com

বাংলায় শিথিল হচ্ছে লকডাউনের নিয়মকানুন

দৈনিক বার্তা সময় ডেস্ক: / ১৬১ বার পড়া হয়েছে
প্রকাশ সময় : শুক্রবার, ২৯ মে, ২০২০

বাংলায় শিথিল হচ্ছে লকডাউনের নিয়মকানুন। ১ জুন থেকে রাজ্যের ধর্মীয় স্থান থেকে অফিস, রাজ্যে প্রায় সমস্ত কিছুই খুলে দেওয়ার কথা ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শু্ক্রবার প্রশাসনিক বৈঠকে লকডাউন শিথিল করা সম্পর্কে একাধিক সিদ্ধান্তের কথা জানান মুখ্যমন্ত্রী। তবে একইসঙ্গে স্যানিটাইজেশনের উপর জোর দিতে নির্দেশ দিলেন তিনি।

আগামী মাস থেকে বাংলায় খুলছে মন্দির, মসজিদ-সহ সমস্ত ধর্মস্থান। কিন্তু একবারে ১০ জনের বেশি ঢুকতে পারবেন না। এমনকী, ভিড় হলে ধর্মস্থানগুলি বন্ধ করে দেওয়া হবে। ১ জুন থেকে এই নির্দেশিকা কার্যকর হবে বলে জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে রাজ্যে কোথাও ধর্মীয় জমায়েত করতে দেওয়া হবে না। মন্দির-মসজিদে ভিড়ও করা যাবে না। জোর দিতে হবে স্যানিটাইজেশনে। ধর্মীয় স্থানে ঢোকার আগে স্যানিটাইজেশন বাধ্যতামূলক করা হল।

একইসঙ্গে বেসরকারি বাসে যত আসন, ততজন যাত্রী তোলা যাবে বলে জানিয়ে দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।তবে বাসে দাঁড়িয়ে যেতে পারবেন না কোনও যাত্রী।অল্প যাত্রী নিয়ে বেসরকারি বাস চলাচলের ফলে বিপুল ক্ষতি হচ্ছে, তাই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হল। আগে মাত্র ২০ জন যাত্রী নিয়ে বাস চালানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। বাসে স্যানিটাইজেশনে জোর দেওয়া হবে। মুখ্যমন্ত্রীর কথায়, “বাসের আসনে বসতে গেলে স্যানিটাইজ করে নেওয়া দরকার। যাত্রীদের মুখে মাস্ক ও হাতে গ্লাভস থাকা বাধ্যতামূলক।” একইসঙ্গে তাঁর আবেদন, বাসের কনডাক্টরের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করবেন না।

১ জুন থেকে খুলছে পাটকল ও চা শিল্পও। সেখানে হাজির থাকতে পারবেন ১০০ শতাংশ কর্মী। ৮ জুন থেকে ১০০ শতাংশ কর্মীকে নিয়ে বেসরকারি, সরকারি অফিস খুলতে পারবে।  তবে এ কদিন স্যানিটাইজ করে নেওয়া দরকার বলে মত প্রকাশ করেন মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর কথায়, “কাজ করার মাঝেই হাত স্যানিটাইজ করতে হবে।”


এই বিভাগের আরও বার্তা

যোগাযোগ করুনঃ